মাঝরাতে বিকট শব্দে ঘুম ভাঙল রোগীদের, আতঙ্কে ছোটাছুটি

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে আগুন লেগেছে। তবে এতে কেউ হতাহত না হলেও তাড়াহুড়ো করে নামতে গিয়ে অনেকে আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রোগীরা জানান, রাত দেড়টার দিকে ঘুমাচ্ছিলেন রোগীরা। হঠাৎ বিকট শব্দে তাদের ঘুম ভেঙে যায়। ঘুম ভাঙতেই চারপাশে ধোঁয়া দেখতে পান তারা। এ সময় হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎসকরা রোগীদের দ্রুত নিচে নামতে বলেন। হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় ভর্তি সব রোগী বেড থেকে বেরিয়ে রাস্তায় আশ্রয় নেন। তাড়াহুড়ো করে নামতে গিয়ে অনেকে আহত হন।

রোগীর স্বজন মাহতাবউদ্দিন বলেন, আমার ছোট ভাইয়ের টাইফয়েড। তিনি পুরুষ ওয়ার্ডে ভর্তি। আমি তার সঙ্গে ছিলাম। আমরা ঘুমাচ্ছিলাম। মানুষের ডাকাডাকিতে ঘুম ভেঙে গেলে দেখি আশপাশে ধোঁয়া ও পোড়া গন্ধ। পরে দ্রুত ভাইকে নিয়ে হাসপাতালের সামনের রাস্তায় গিয়ে দাঁড়াই।

রোগী ছবি রানী বলেন, আমার শরীর দুর্বল। তাই বিকেলে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। রাতে ডাক্তার স্যালাইন লাগিয়ে দিলে আমি ঘুমিয়ে পড়ি। ঘুম ভেঙে দেখি সবাই ছোটাছুটি করছেন। তখন স্যালাইন খোলার জন্য নার্সদের ডাকতে থাকি। তবে কেউ আসেনি। তাই স্যালাইন লাগানো অবস্থায় সামনের রাস্তায় গিয়ে উঠি। সেখানে আরো অনেক মানুষ ছিলেন।

বরগুনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হারুনর রশিদ বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক হাসপাতালে যাই। এরপর বিদ্যুৎ বিভাগকে ঘটনাটি জানালে তারা এ এলাকার সংযোগ বন্ধ করে দেয়। এখন পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক রয়েছে।

এ বিষয়ে কথা বলতে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সোহরাব হোসেনকে একাধিকবার ফোন করলেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*