পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে ম্যাচ জিতলেও শঙ্কা থেকে যায় বাংলাদেশের, দেখে নিন সমীকরণ

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হার প্রশ্ন তুলেছিল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সুপার ১২ এ খেলা নিয়ে। কিন্তু ওমানের বিপক্ষে জয় সেই প্রশ্নের ওজন একটু হলেও কমিয়েছে। তারপরও কোয়ালিফাই করতে বাংলাদেশকে চেয়ে থাকতে হবে শেষ ম্যাচের দিকে।

সেই সঙ্গে রান রেটের হিসেবও চলে আসতে পারে। তবে ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ সেরা সাকিব আল হাসান সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, এখনও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ আছে বাংলাদেশের।

প্রথম রাউন্ডে বাংলাদেশের গ্রুপে বাকি ৩ দল ওমান, পাপুয়া নিউ গিনি ও স্কটল্যান্ড। যেখানে স্কটিশরা ২টিতে জিতে অনেকটাই স্বস্তিতে আছে।

আর একটি করে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ ও ওমান। তবে পাপুয়া নিউ গিনি ২টিতে হেরে ইতোমধ্যে কোয়ালিফাইয়ের দৌড় থেকে ছিটকে গিয়েছে।

এমন অবস্থায় ২১ অক্টোবর দিনের খেলায় পাপুয়া নিউ গিনির মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। কিন্তু এই ম্যাচে জিতলেও তাদের চেয়ে থাকতে হবে দিনের শেষ খেলায়।

যেখানে স্কটিশদের বিপক্ষে খেলতে ওমান। সেই ম্যাচে স্কটল্যান্ড জিতলে বাংলাদেশ সহজেই পরের রাউন্ডে চলে যবে। তবে সমীকরণ কঠিন হবে যদি ওমান জিতে যায়।

সেক্ষেত্রে হিসেব চলে আসবে রান রেটের। এই পরিস্থিতিতেও সাকিব আশা করছেন সব কিছু বাংলাদেশের পক্ষেই যাবে,

এমনকি গ্রুপ চ্যাম্পিয়নও হতে পারে মাহমুদউল্লাহবাহিনী। সাকিব বলেন, ‘আমি জানি না, আমরা হয়তো রান রেটের হিসেবটা দেখলে আরও ভালোভাবে বলতে পারব।

তবে আমাদের কম্পিউটার অ্যানালিসিস্টের সঙ্গে কথা হওয়ার পর যেটা বলল যে এখন যে অবস্থায় আছে রান রেট আমরা যদি পাপুয়া নিউ গিনির সঙ্গে মোটামোটি ভালো ব্যাবধানে জিতি যেটা আমরা আশা করি জেতার।

যেহেতু ওমান আর স্কটল্যান্ডের ম্যাচ আছে তো একটা দল অবশ্যই হারবে সেখানে।’

‘তাতে রান রেটটা পিছিয়ে যাবে আর পাপুয়া নিউ গিনিকে হারালে আমাদের রান রেটটা বাড়বে। এখনও হয়তো আমাদের সম্ভাবনা আছে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাওয়ারও।

আর যদি সেটা না হয় আমরা কোয়ালিফাই করার মতো একটা অবস্থানে আছি মনে হয়। যতখানি আমি তথ্য পেয়েছি তবে এটা আসলে না দেখে বলাটা মুশকিল হবে। যে কোন অবস্থায় আছে রান রেটের বিচারে’ আরও যোগ করেন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*