কোরিয়ান নারীদের বয়স থেমে থাকার রহস্য

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তার ছাপ চেহারায়ও পড়ে। তবে অনেক সময় বয়সের আগেই ত্বক বুড়িয়ে যায়। কিন্তু কখনো খেয়াল করে দেখাছেন কি, কোরিয়ান নারীদের বয়স সহজে বাড়ে না। কোরিয়ান নারীরা অত্যন্ত ফিট, পাতলা এবং সুস্থ। কোরিয়ান কিশোর, তরুণ, মধ্যবয়সী পুরুষ/মহিলা বা ৬০-৭০ বছর বয়সী প্রত্যেককেই কিন্তু দুর্দান্ত ফিট। তাদের সবাইকেই কাছাকাছি বয়সের মনে হয়। সহজে তাদের বয়স ধরা যায় না।

তাইতো কোরিয়ান নারীদের আকর্ষণীয় ফিটনেস বিশ্বের সবাইকে কৌতূহলী এবং বিস্মিত করে। কোরিয়ান নারীরা ফিট থাকার জন্য কী খায়, কী করে তা সম্পর্কে জানার আগ্রহ সবারই আছে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কোরিয়ান নারীদের বয়স থেমে থাকার রহস্য-

সুষম খাদ্য তালিকা

বিভিন্ন ধরনের ডায়েট তালিকায় যেখানে নির্দিষ্ট কিছু খাবার বাদ দেওয়া বা কমিয়ে খাওয়ার কথা বলা হয় সেখানে কোরিয়ান নারীরা ডায়েটে সব ধরনের খাবারের ভারসাম্য রাখেন। তারা প্রায় সবকিছুই খান। প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, ফ্যাট ইত্যাদি সব নিয়ে স্বাস্থ্যকর কোরিয়ান ডায়েট গঠিত হয়। অর্থাৎ খাবার তালিকা থাকে সুষম। খাবারের পরিমাপ সম্পর্কে তারা খুবই সচেতন। অতিরিক্ত খাবার তারা কখনোই গ্রহণ করে না। সেইসঙ্গে তাদের দৈনন্দিন রুটিনে শারীরিক নানা ক্রিয়াকলাপ অন্তর্ভুক্ত থাকে।

শাকসবজিকে প্রাধান্য দেয়

আপনি যদি কখনো ঐতিহ্যবাহী কোরিয়ান খাবার খেতে চান তবে খাবার টেবিলে সবচেয়ে বেশি দেখবেন সবজির নানা পদ। কোরিয়ানদের পছন্দের খাবারের তালিকায় প্রথমেই রয়েছে বিভিন্ন সবজির নাম। যা তাদের স্লিম, সুস্থ শরীরের পেছনে অন্যতম প্রধান কারণ। বেশিরভাগ শাকসবজি ফাইবারযুক্ত, স্বাস্থ্যকর এবং কম ক্যালোরিযুক্ত হওয়ার কারণে তা ওজন কমাতে সহায়তা করে। সবজিতে থাকা ফাইবার দীর্ঘ সময় পেট ভরিয়ে রাখে, ফলে দূরে থাকা যায় অন্যান্য উচ্চ ক্যালোরিযুক্ত খাবার থেকে।

ফার্মেন্টেড ফুডস

সচেতন কোরিয়ান নারী মাত্রই সব ধরনের খাবারের সঙ্গে একটি সাইড ডিশ রাখে। যা মূলত ফার্মেন্টেড ফুডস। এ ধরনের খাবারগুলো অন্ত্রের জন্য দুর্দান্ত এবং হজমের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। এটি কেবল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্যই করে না, সেইসঙ্গে ওজন কমাতেও সাহায্য করে।

ফাস্টফুডের চেয়ে ঘরে তৈরি খাবার বেশি পছন্দ

কোরিয়ান নারীর ফিট শরীরের পেছনে অন্যতম প্রধান কারণ হলো যে সে বাড়িতে তৈরি খাবার পছন্দ করে। যখন আপনি ওজন কমাতে চান তখন বাড়িতে তৈরি খাবারের চেয়ে ভালো আর কিছু হয় না। প্রক্রিয়াজাত, অস্বাস্থ্যকর খাবার, ফাস্টফুড খেলে তা আপনার ওজন বাড়ানোর পাশাপাশি দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে। কোরিয়ান নারীরা বাইরে খাওয়ার পরিবর্তে বাড়িতে বসে খাবার খেতে বেশি পছন্দ করে। শরীরের জন্য ভালো খাবারগুলোই তারা খেয়ে থাকে।

সামুদ্রিক খাবার

কোরিয়ার অন্যতম প্রধান খাদ্য সামুদ্রিক খাবার। ফ্যাটযুক্ত সামুদ্রিক মাছের পাশাপাশি তারা আরেকটি স্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে থাকে। সেটি হলো সামুদ্রিক শৈবাল। এটি কোরিয়ার পরিচিত খাদ্য উপাদান যা বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে যোগ করে খেয়ে থাকে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য দুর্দান্ত এবং দীর্ঘ সময় পেট ভরিয়ে রাখে।

সক্রিয় জীবনযাপন

বেশিরভাগ কোরিয়ান হাঁটতে ভালোবাসে। তারা তাদের গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য গণপরিবহনের পরিবর্তে হেঁটে যেতেই পছন্দ করে। তারা তাদের জীবনযাত্রা সক্রিয় রাখে যা বেশিরভাগ কোরিয়ান নারীদের সুস্থ থাকতে এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। আমরা সবাই জানি, ওজন নিয়ন্ত্রণ ও সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য শারীরিক ক্রিয়াকলাপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*