Breaking News

দুইবার ‘মৃ’ত্যু’’ ঘো’ষণা, সবাইকে চমকে বেঁ’চে উ’ঠলো মেয়েটি

চিকিৎসক’রা দুই বা’র ‘মৃ’ত্যু’ ঘো’ষ’ণার পর সবাইকে চমকে দিয়ে দুই বার’ই বেঁ’চে উঠেছে ১২ ব’ছরে’র এক মেয়ে। যা দেখে ‘চম’কে উ’ঠেন স্বয়ং চিকিৎ’সক’রাও। মার্কিন যুক্ত’রাষ্ট্রের কভিংটন (Covington) শহরে’র বাসি’ন্দা জুলি’য়েট ডেলি’র সঙ্গে এমনটি ঘটেছে।

মার্কিন স্বা’স্থ্য সংস্থা CDC জা’নিয়েছে, আমে’রিকা’র অনেক শি’শুই ‘মা’ল্টি সিস্টেম ইন’মে’টোরি সিন’ড্রোম’-এ (multisystem inflammatory syndrome in children)আ’ক্রা’ন্ত রয়েছে। এক মাস আ’গে জুলি’য়েটও ‘মাল্টি সিস্টেম ইনফ্লেমেটোরি সি’ন’ড্রোম’-এ আ’ক্রা’ন্ত হয়। এর জন্য ক’রোনাভা’ইরাস’কেই দায়ী ক’রেছেন মা’র্কিন স্বাস্থ্য সংস্থার বি’শেষ’জ্ঞরা।

জু’লিয়ে’টের অভি’ভাবকরা প্রথমে মে’য়ের ‘মাল্টি সিস্টে’ম ইন’ফ্লেমেটো’রি সিনড্রোম’ আ’ক্রান্ত বিষয়ে কিছু’ই বু’ঝতে পারে’ননি। জুলি’য়ে’ট যখন তখন ঘুমি’য়ে পড়ত। তার শরীরে কোনো ধর’ণের ভাই’রাসে’র উপ’সর্গ ছিল না। তবে এক স’প্তাহ পর থেকেই জ্বর, বমি আর ত’লপে’টে ব্যথা শুরু হয়। ক’য়েকদিন পর মে’য়ের ঠোঁ’ট নীল’চে ফ্যা’কাশে লক্ষ্য করেন জু’লিয়ে’টের অ’ভিভা’বকরা। তাই কাছের হাস’পা’তালে ছুটেন তারা।

সেখানে ক’রোনাভা’ইরা’সের মূল উপ’সর্গ না থাকা’য় অ’ন্যান্য প’রীক্ষা করা হয়। ওই হাসপা’তা’লের রেডি’য়োলজি বি’ভাগে’র প্রধান জেনিফার অনুমা’ন করেন, জুলি’য়েটের হয়তো অ্যা’পেন্ডিসা’ইটি’সে বা পাকস্থ’লিতে কোনো ব্যা’ক্টে’রি’য়ার সংক্র’মণ ঘটেছে। এই অনুমা’নে’র ভিত্তি’তেই জুলি’য়েটের চি’কিৎসা শুরু হয়। কিন্তু এরপর থে’কেই দ্রুত স্বা’স্থ্যের অবন’তি ‘ঘট’তে থাকে তার।

চিকিৎস’করা দেখেন, জুলি’য়ে’টের হৃদ’স্পন্দ’নের গতি অস্বা’ভাবিক’ভাবে কমে গিয়ে’ছে। মিনি’টে ৭০ থেকে ১২০ হৃ’দস্পন্দ’নের জায়’গায় জুলি’য়েটের হৃদস্পন্দন ছিল মি’নিটে মাত্র ৪০ বার। এরপরই তাকে জরুরি বিভাগে নিয়ে চিকিৎসা শু’রু করা হয়। এক সম’য় নিস্তেজ হয়ে যায় জু’লিয়েট। নিয়ম মা’ফিক সব রকম চে’ষ্টা করে দেখার পর চিকিৎসকরা জু’লিয়ে’টকে মৃত বলে ঘোষ’ণা করেন।
করোনা

তবে মৃত ঘোষ’ণা করা’র মিনিট খা’নেক পর চিকিৎসক’দের চ’মকে দিয়ে আ’শ্চর্যজন’কভাবেই কেঁপে কেঁপে উঠে মৃত ঘো’ষিত মেয়ে’র শ’রীর। চিকিৎসক’রা পরীক্ষা করে দেখেন, কি’ছুক্ষ’ণের জন্য জুলি’য়েটের হৃদ’স্প’ন্দন প্রা’য় বন্ধ হয়ে গিয়ে’ছিল।

কিন্তু আবা’রো তার হৃদ’য’ন্ত্র সচল হয়ে যায়। মেয়ে’টির ফুস’ফুসে কো’নো’ভাবে র’ক্ত ঢুকে যাওয়া’য় এটি হয়ে’ছে। এমনটি আ’রো একবার হয়েছে। জু’লিয়ে’টের সঙ্গে এটি মোট দুবার ঘটেছে। চি’কিৎসকদে’র দাবি, জুলি’য়েটে’র এই অবস্থা’র জন্য দায়ী করো’না ভাইরা’সের সংক্র’মণ।

‘মায়ো’কা’র্ডাইটিস’(Myocarditis)-এ আ’ক্রান্ত হ’য়ে হৃদ’য’ন্ত্রের ক্রি’য়া সাময়ি’ক’ভাবে বন্ধ হয়েছি’ল তার। কিন্তু কপা’ল জো’রে দু’বার ওই ধাক্কা সাম’লে বেঁচে ফিরেছে ওই মেয়ে’টি।

Check Also

মেয়েদের স্বপ্ন*দোষ হলে কি ফরজ গোসল করতে হবে? জেনে নিন!

পুরুষদের মতো যদি কোনো নারীর স্বপ্নদোষ হয় তাহলে সেই নারীর ওপরও কি কোনো কিছু ফরজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *