করোনার সাথে লড়াইয়ে ক্লান্ত হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

করোনা ভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় নেদারল্যান্ডস সরকারের নেতৃত্ব দেওয়া দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ব্রুনো ব্রুইন্স পদত্যাগ করেছেন। একদিন আগে দেশটির পার্লামেন্টে করোনাভাইরাস মহামারি বিতর্কে বক্তৃতা দেয়ার সময় অচেতন হয়ে পড়েছিলেন তিনি। পরে বৃহস্পতিবার মন্ত্রিত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন এই ডাচ মন্ত্রী।বুধবার পার্লামেন্টে করোনা নিয়ে বিতর্কের সময় সংসদ সদস্যদের প্রশ্নের জবাব দেয়ার সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বুর্নো ব্রুইনস (৫৬) অচেতন হয়ে পড়েন। পরে এক বিবৃতিতে ৫৬ বছর বয়সী এ রাজনীতিবিদ জানান, কয়েক সপ্তাহের টানা কাজের ক্লান্তির কারণেই তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। এ কাজ চালিয়ে যাওয়ার মতো শারীরিক অবস্থা নেই তার। এ অবসাদের কারণে তার শরীর করোনা ভাইরাস সঙ্কট মোকাবিলার উপযোগী নয়।প্রধানমন্ত্রীর সুপারিশে দেশটির রাজা তার পদত্যাগের বিষয়টি অনুমোদন করেন।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে বলেছেন, সুস্থ হয়ে উঠতে কতদিন সময় লাগবে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হওয়ায় পদত্যাগ করেছেন ব্রুইনস। সঙ্কটের প্রকৃতিই এমন যে তাৎক্ষণিকভাবে পুরোদমে কাজ করতে পারবেন এমন একজন মন্ত্রীর প্রয়োজন।নেদারল্যান্ডস সরকার বলছে, বুর্নোর স্থলাভিষিক্ত হিসাবে কাউকে না পাওয়া পর্যন্ত ভাইস প্রধানমন্ত্রী হুগো দে জঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন।উল্লেখ্য নেদারল্যান্ডসে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে দুই হাজার ৪৬০ জন। এছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন অন্তত ৭৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪০৯ জন।

আরও পড়ুন=মুজিববর্ষকে কেন্দ্র করে হাফেজদের দিয়ে ৫ হাজার ২৭৫ বার কোরআন খতম করিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। শুক্রবার (২০ মার্চ) নারায়ণগঞ্জ মাসদাইর কবরস্থ জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করে বিষয়টি জানান তিনি।শামীম ওসমান বলেন, কোনো কিছুর বিনিময় ছাড়াই স্বেচ্ছায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে হাফেজ সাহেব ও এতিমরা ৫২৭৫ বার কোরআনে খতম দিয়েছেন। এই খতমে কোরআন আল্লাহর নবীর নামে বখশে দেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার এবং সব শহীদদের নামেও বখশে দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে দোয়া করা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যার জন্য।‘পাশাপাশি পৃথিবীব্যাপী যে মহামারিতে মানব সম্প্রদায় আজ কঠিন মুহূর্তে উপনীত হয়েছে সেখানে একমাত্র সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ ও তার কাছে ক্ষমা ভিক্ষা ছাড়া আমাদের আর কিছুই করার নেই। তাই পবিত্র কোরআনখানির মাধ্যমে এই পন্থাকেই আমি সর্বোত্তম বলে মনে করেছি।’

তিনি বলেন, এই মসজিদের পাশেই কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন আমার দাদা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ও ভাষা সৈনিক খান সাহেব ওসমান আলী, বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য ও স্নেহ পাওয়া আমার মা ভাষা সৈনিক নাগিনা জোহা, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও ভাষা সৈনিক আমার বাবা একেএম সামুসজ্জোহা, যিনি ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে মুক্ত করতে গুলি খেয়েছিলেন। এখানে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন আমার বড় ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসিম ওসমান। যিনি বিয়ের পরদিনই বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিশোধ নিতে প্রতিরোধ যুদ্ধে চলে গিয়েছিলেন। মূলত যে নারায়ণগঞ্জে জাতির জনকের ব্যাপক বিচরণ ছিল, যে নারায়ণগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জবাসীকে বঙ্গবন্ধু ভালোবাসতেন সেই নারায়ণগঞ্জের মাটিতে ব্যাপকভাবে মুজিববর্ষ পালনের পরিকল্পনা ছিল আমাদের। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতিতে আল্লাহকে খুশি করাই এখন সর্বোত্তম এবং একমাত্র কাজ আমাদের।করোনা ইস্যুতে বাজার পরিস্থিতি নিয়ে শামীম ওসমান বলেন, এখন মজুদদারির সময় নয়, পাশে দাঁড়ানোর সময়। যারা দাম বাড়িয়ে অর্থ কামাচ্ছেন তারাও তো এই মহামারীরিতে আক্রান্ত হতে পারেন, এটা চিন্তা করলেই মনে হয় তাদের হেদায়েত আসবে।

About uzzal

Check Also

প্রশাসনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে লক্ষ্মীপুরে চলছে অবাদে কোচিং ক্লাস

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশে সব ধরণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *